শুক্রবার, ১৮ Jun ২০২১, ০৬:৩১ অপরাহ্ন

বরিশালে সংযোগ ব্রীজের বেহাল অবস্থা, জনভোগান্তি চরমে

বরিশাল প্রতিনিধি :: বরিশালের বাকেরগঞ্জে উপজেলার রঙ্গশ্রি ইউনিয়নের বাখরকাঠী ও নলছিটি উপজেলার সিদ্ধকাঠী ইউনিয়নের চৌদ্দবুড়িয়া সংযোগ ব্রীজের বেহাল দশা। প্রায় সতের বছর পূর্বে এ ব্রীজটি নির্মিত হলেও দীর্ঘদিন ধরে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে রয়েছে। এতে করে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন জনসাধারণ। ঝুঁকিপূর্ণ এ ব্রীজ দিয়ে পারাপারের সময় একাধিক দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন অনেকেই। ফলে স্থানীয়রা নিজেদের প্রচেষ্টায় বাঁশ দিয়ে জোড়া তালি দিলেও কিছুদিন যেতে না যেতেই আগের অবস্থায় ফিরে আসে ব্রীজটি।

স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবী, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ব্রীজটি দ্রুত মেরামত করে জনগণের নিরাপদ চলাচলের ব্যবস্থা করা হোক। স্থানীয় বাসিন্দাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলার রঙ্গশ্রি ইউনিয়নের বাখরকাঠী ও নলছিটি উপজেলার সিদ্ধকাঠী ইউনিয়নের চৌদ্দবুড়িয়া সংযোগ ব্রীজটি প্রায় সতের বছর পূর্বে নির্মাণ করা হয়। দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়ায় ব্রীজটি এক পর্যায় পারাপারের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। ব্রীজ পার হতে গিয়ে অনেকেই দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন জানিয়ে স্থানীয়রা আরো জানান, তারা নিজেদের চেষ্টায় বাঁশ দিয়ে কোনরকম জোড়াতালি দিয়ে ব্রীজ পার হচ্ছেন। জানা গেছে, এলাকার ইউনিয়নের হাজারো মানুষ ও স্কুল কলেজের কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীরা প্রতিদিন ঝুঁকিপূর্ণ এ ব্রীজের উপর দিয়ে যাতায়াত করে থাকেন।

তবে বর্তমানে জোড়াতালি দেয়া এ ব্রীজটিতে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে পথচারীরা। আর এতে করে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, ব্রীজটির পশ্চিম পাড়ে চৌদ্দবুড়িয়া বাড়ৈপাড়া আর পূর্ব পাড়ে বাখরকাঠী মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও জামে মসজিদ সহ বাজার রয়েছে। এ ব্রীজ দিয়ে বাখরকাঠী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বাখরকাঠী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও সিদ্ধকাঠী ইউনিয়নের চৌদ্দবুড়িয়া গ্রামের বাড়ৈপাড়া সহ মাধ্যমিক ও প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাখরকাঠী ও চৌদ্দবুড়িয়া মিলে হাজার হাজার জনগণ ও ছাত্র-ছাত্রীরা যাতায়াত করে।

তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দুই ইউনিয়নের মধ্যবর্তী হওয়ায় কোন ইউপি চেয়ারম্যানই ব্রীজটি সংস্কারে কোন উদ্যোগ গ্রহণ করেননি। এলাকাবাসী এ পাটাতন ব্রীজের পরিবর্তে একটি সেতু নির্মাণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি