শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ১২:১১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
মিরনজিল্লা কলোনিতে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বাম মোর্চার সমাবেশ ও মিছিল রাজশাহীতে কোটা বাতিলের দাবিতে রাবিতে মশাল মিছিল দিনাজপুরের ব্যানানা আম দেশের গণ্ডি পেরিয়ে এবার ইউরোপে নোয়াখালীতে গাঁজা-অ্যালকোহল সেবনের দায়ে দুই ব্যক্তির কারাদন্ড শিবালয়ে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত চৌদ্দগ্রামে র‌্যাবের হাতে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী আটক লক্ষ্মীপুরে সরকারি কর্মচারী ক্লাবের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন লক্ষ্মীপুরে শুভ হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন জনগণের কল্যাণে সততার সাথে কাজ করতে হবে- ধর্মমন্ত্রী উজিরপুরে দরিদ্র কৃষককে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে হত্যার চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

যুদ্ধবিমান কেনায় ইসরায়েলের আপত্তি, বৈঠক বাতিল আমিরাতের

নিউজ ডেস্ক : সম্প্রতি নতুন সম্পর্ক স্থাপিত হয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দুটি দেশ আরব আমিরাত ও ইসরায়েলের মধ্যে। পরিপ্রেক্ষিত বিচার করলে এই সম্পর্কের গুরুত্ব ও ভবিষ্যৎ প্রভাব সুদূর প্রসারী। যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় দুই দেশের মধ্যে এই গুরুত্বপূর্ণ দ্বিপাক্ষিক কূটনীতিক সম্পর্কটি হয়েছে। তবে তিন দেশের মধ্যে এমন স্বস্তির সম্পর্কের বাঁধন শুরুতেই আলগা হতে শুরু করেছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েলের সঙ্গে একটা পূর্বনির্ধারিত বৈঠকে যোগ দিতে অস্বীকার করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। আমিরাতের কাছে এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান বিক্রিতে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর আপত্তির কারণে ক্ষুব্ধ আমিরাত ওই বৈঠকে যোগ দেবে না বলে জানিয়েছে। খবর আল জাজিরার।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত সপ্তাহে এক ঘোষণায় বলেন, আমিরাতের কাছে যুদ্ধবিমানএফ-৩৫ বিক্রয় করার ব্যাপারে একটা চুক্তি হওয়ার বিষয়টা পর্যালোচনার মধ্যে রয়েছে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে আভাস দেয়া হয়, আগামী ৬ মাসের মধ্যে একটা চুক্তিও হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের এফ-৩৫ যুদ্ধবিমানটির খদ্দের জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া ও ইসরায়েলের মতো মিত্ররাই। কিন্তু মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধবিমান বিক্রয়ের সিদ্ধান্তটা তাদের মিত্র ইসরায়েলের স্বার্থের দিকে লক্ষ রেখেই নিতে হয়। কারণ মধ্যপ্রাচ্যে ইসরায়েলকে সমরশক্তিতে সবার ওপর রাখাটাই যুক্তরাষ্ট্রের নৈতিক দায়িত্ব।

যুক্তরাষ্ট্রের অক্সিওস নিউজ ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েলের আমিরাতের একটা নির্ধারিত বৈঠক হওয়ার কথা। কিন্তু আবুধাবি ও ওয়াশিংটনের মধ্যে যুদ্ধবিমান বিক্রির চুক্তি হতে পারে, এমনটা জেনে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু তার আপত্তির কথা যুক্তরাষ্ট্রকে জানিয়ে দেন। এর জেরে আমিরাত শুক্রবারের ত্রিপাক্ষিক বৈঠকে যোগ না দেয়ার বিষয়টা জানিয়ে দিয়েছে।

তারা বলেছে, আমিরাত মনে করে, তাদের কাছে এফ-৩৫ বিক্রিতে আপত্তি জানিয়ে ইসরায়েল তাদের সঙ্গে ইসরোয়েলে ‘ঐতিহাসিক’ চুক্তির শর্ত লঙ্ঘন করেছে। এটা ইসরায়েলের দ্বিমুখী আচরণের বহিঃপ্রকাশ।

আমিরাতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনে যতগুলো বিষয় নিয়ামক হিসেবে কাজ করেছে, তার মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে এফ-৩৫ বিমান কেনার ব্যাপারটাও রয়েছে। কিন্তু ইসরায়েল তাদের আপত্তি দ্বারা এটাই বোঝাচ্ছে যে, তাদের মুখের কথার সঙ্গে মনের ভাবের কোনো মিল নেই।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: